মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কার্যবিবরণী ও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

আদর্শ সদর, কুমিল্লা।

আদর্শ সদর উপজেলার আইন শৃংখলা কমিটির ২৯/০৫/২০১৪ তারিখে  অনুষ্ঠিত সভার কার্যবিবরনী

 

সভাপতিঃ

 মোঃ হেলাল উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, আদর্শ সদর, কুমিল­­­া।

সভার স্থানঃ

 উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষ।

সভার তারিখঃ

 ২৯ মে/২০১৪খ্রিঃ

সময়ঃ

 সকাল ১১.০০ ঘটিকায়।

           সভায় উপস্থিত সদস্যদের নামের তালিকা পরিশিষ্ট ’’ ক’’ তে দেখানো হলো

 

সভায় উপস্থিত কমিটির সম্মানিত সদস্যদেরকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ শুরু করেন।  সভার শুরুতে গত ২৯/০৪/২০১৪খ্রিঃ তারিখে অনুষ্ঠিত সভার কার্যবিবরণী ও সিদ্ধামেত্মর আলোকে গৃহিত পদক্ষেপসমূহ পাঠ করে শুনানো হয় এবং কার্যবিবরনীতে কোন সংশোধনী না থাকায়  তা সর্বসম্মতিক্রমে  অনুমোদিত ও গৃহীত হয়।

০১। আলোচ্য বিষয়ঃ   অফিসার ইন-চার্জ, কোতয়ালী মডেল থানা,কুমিল­­া কর্তৃক প্রেরিত ফেব্রুয়ারি/২০১৪ ও মার্চ/২০১৪ মাসের অপরাধ চিত্রের প্রতিবেদন নিম্নরুপ-

ক্র. নং

মাসের নাম

খুন

ধর্ষণ

ডাকাতি/দুস্যতা

অগ্নি

সংযোগ

অপহরণ

এসিড নিক্ষেপ

নারী ও শিশু নির্যাতন

আইনশৃঙ্খলাবিঘ্নকারী অপরাধ(দ্রুত বিচার)

অন্যান্য

মোট

মন্তব্য

 

১০

১১

১২

০১

ফেব্রুয়ারি/২০১৪

০১

-

০১

-

০১

-

০৩

-

৫৬

৬২

 

০২

মার্চ/২০১৪

০১

০১

০১

-

০১

-

০৮

০২

১০৪

১১৮

 

০২। আলোচনা ও সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ ঃ

ক্রম

আলোচ্য বিষয়

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়ন

ক.

অপরাধচিত্র পর্যালোচনা ঃঅপরাধচিত্র পর্যালোচনায় দেখা যায় যে,ফেব্রুয়ারি/২০১৪মাস থেকে মার্চ/২০১৪ মাসে অপরাধের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। অর্থাৎ ফেব্রুয়ারি /২০১৪মাসে বিভিন্ন অপরাধের জন্য ৬২টি  এবং মার্চ/২০১৪ মাসে ১১৮টি মামলা রুজু হয়েছে। মার্চ/২০১৪ মাসে অগ্নিসংযোগ ওএসিড নিক্ষেপ সংক্রামত্ম অপরাধ সংঘটিত হয়নি। খুন, ডাকাতি/দুস্যতা ও অপহরণ সংক্রামত্ম অপরাধের সংখ্যা অপরিবর্তিত রয়েছে । ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতন, আইন-শৃংখলা বিঘ্নকারী অপরাধ ও অন্যান্য অপরাধের সংখ্যা গত মাস থেকে কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। সভাপতি অফিসার ইন-চার্জ,কোতয়ালী মডেল থানা,কুমিল­­া-কে আইন-শৃঙ্খলা উন্নতির জন্য এবং গুরুতর   অপরাধসহ সব ধরনের অপরাধের সংখ্যা হ্রাস করণের জন্য  প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে অনুরোধ করেন।

অপরাধ প্রবণতা নিয়ন্ত্রণে রাখা, মামলার সংখ্যা হ্রাস করা এবং যেকোন গুরুতর অপরাধ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণসহ ছোটখাট চুরি, সিঁদেল চুরি  ও পশুচুরি প্রতিরোধে অফিসার ইন-চার্জ, কোতয়ালী মডেল থানা, কুমিল­­া প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

অফিসার ইন-চার্জ,

কোতয়ালী মডেল থানা, কুমিল­­া

খ.

আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনাঃআদর্শ সদর উপজেলার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়নে পুলিশের পক্ষ থেকে সার্বিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আদর্শ সদর উপজেলার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনায় দেখা যায়  মার্চ/২০১৪ মাসে মামলার সংখ্যা গত মাস থেকে বৃদ্ধি পেয়েছে।  ভবিষ্যতে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নতি করার জন্য সর্বাত্মক  প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে সকলকে অনুরোধ করেন।

আদর্শ সদর উপজেলার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সন্তোষজনক রাখাসহ আরো উন্নয়নের লক্ষ্যে সকলকে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

অফিসার ইন-চার্জ, কোতয়ালী মডেল থানা, কুমিল­­া,আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সকল বিভাগ ও কমিটির সকল সদস্য, আদর্শ সদর, কুমিল­­া।

গ.

মাদকদ্রব্য ও চোরাচালান নিয়ন্ত্রণঃ  সভাপতি উলে­­খ করেন যে, আদর্শ সদর উপজেলার ৩টি ইউনিয়ন জুড়ে সীমান্ত এলাকা রয়েছে। যার ফলে এখানে বিপুল পরিমাণ অবৈধ মাদক বিশেষ করে ফেনসিডিল ও গাজা ঢুকছে। যার জন্য পরিস্থিতি আশংকাজনক পর্যায়ে পৌঁছেছে। যে কোন মূল্যে এর প্রতিরোধ আবশ্যক মর্মে তিনি উলে­খ করেন। মাদকদ্রব্য ও চোরাচালানের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণসহ এর কুফল সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করার লক্ষ্যে সীমামত্মবর্তী ইউনিয়নসমূহে পূর্বের ন্যায় প্রতি মাসে মাদকদ্রব্য ও চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভাঅনুষ্ঠানের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদেরচেয়ারম্যানদেরকে অনুরোধ করেন।

মাদকদ্রব্য ও চোরাচালানের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণসহ এর কুফল সম্পর্কে জনগণকে সচেতন   করার লক্ষ্যে সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদেরকে প্রতি মাসে এ সংক্রান্ত সভা করে সভার কার্যবিবরণী নিম্নস্বাক্ষরকারীর কার্যালয়ে প্রেরণের কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে। এছাড়া সংশি­ষ্ট বিভাগ কর্তৃক মাদকদ্রব্য ও চোরাচালান বিরোধী অভিযান পরিচালনার কার্যক্রম আরো জোরদার করতে হবে।

অফিসার ইন-চার্জ,

বিজিবি,কাষ্টম ও সীমান্তবর্তী ইউপি চেয়ারম্যান।

 

 

 

 

 

ঘ.

জঙ্গীবাদ,সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধ সংক্রান্তঃ  জঙ্গীবাদ , সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ অব্যাহত রয়েছে মর্মে সভাপতি সভাকে অবহিত করেন। জঙ্গীবাদ,সন্ত্রাস ও নাশকতার কুফল সম্পর্কে স্থানীয় মসজিদসমূহে জুমার নামাজে পবিত্র খুতবা তিলাওয়াতের পূর্বে ইমামগণ যেন মুসল­ীদের উদ্দেশ্যে সচেতনতা ও প্রতিরোধমূলক বক্তব্য পেশ করেন, সে বিষয়ে তদারকি আরো জোরদার করার জন্য ইউপি চেয়ারম্যানদেরকে, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফিল্ড সুপারভাইজারকে এবং কমিটির সকল সদস্যদের পুনরায় অনুরোধ করা হয়।

জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস ও নাশকতার কুফল সম্পর্কে স্থানীয় মসজিদসমূহে জুমার নামাজে পবিত্র খুতবা তিলাওয়াতের পূর্বে ইমামগণ যেন মুসলী­দের উদ্দেশ্যে সচেতনতা ও প্রতিরোধমুলক বক্তব্য পেশ করেন ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে এবং অত্র উপজেলার দায়িত্ব প্রাপ্ত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ফ্লিড সুপারভাইজারকেও এ বিষয়টি তদারকি করতে হবে।

ইউপিচেয়ারম্যান(সকল)আদর্শসদর,কুমিল­­া

 এবং দায়িত্ব প্রাপ্ত ইসলামিকফাউন্ডেশন

এর ফিল্ড সুপার ভাইজার।

  সভায় উপস্থিত সম্মানিত  উপদেষ্টা ও সদস্যগণের বক্তব্য পর্যায়ক্রমে উপস্থাপন করা হলো

 

০১। অফিসার ইন-চার্জ, কোতয়ালী মডেল থানা, কুমিল­­া সভায় উপস্থিত না থাকায় থানা থেকে প্রাপ্ত আলোচ্য মাস মার্চ/২০১৪ এর অপরাধ চিত্র সভায় উপস্থাপন করা হয়। আলোচ্য মার্চ/২০১৪ মাসে সর্বমোট ১১৮টি মামলা রুজু হয়েছে। তন্মধ্যে ০১টা ডাকাতি, ০১টা খুন, ০১টা অপহরণ, ০১টা ধর্ষণ,০৮টা নারী ও শিশু নির্যাতন,০২টা আইন-শৃংখলা বিঘ্নকারী অপরাধ, ৭২টা মাদক ও ০২টা চোরাচালান সংক্রামত্ম অপরাধে থানায় মামলা হয়েছে।  আলোচ্য মার্চ/২০১৪ মাসে মাদক সংক্রামত্ম মামলা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণ হিসাবে উক্ত মাসে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক মাদক বিরোধী অভিযান জোরদার করা হয়েছে।  মাদক প্রতিরোধের বিষয়ে সভাপতি বলেন,  বিজিবি কর্তৃক সীমামত্ম এলাকায় মাদক সেবনকারীদের ধরে থানায় হসত্মামত্মর করা হলে এবং এধরনের অপরাধীদের শাসিত্মর ব্যবস্থা করা গেলে যুব সমাজকে ধংসের হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব হবে। মটর সাইকেলে করে সীমামত্ম এলাকায় যারা গমন করে থাকে তাদের ব্যাপারে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরো তৎপর হতে হবে। এতে করে সীমামত্ম এলাকায় মাদক সেবনকারীদের যাতায়ত অনেকটা কমে যাবে।  তিনি বলেন, সবাইকে মাদক দমনে এগিয়ে আসতে হবে এবং সবাইকে মিলিতভাবে তা প্রতিহত করতে হবে। সীমামত্মবর্তী ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগণও এব্যপারে আরো সর্তক থাকবেন। 

০২। জনাব কাজী মোজাম্মেল হক, চেয়ারম্যান, ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়ন পরিষদ, আদর্শ সদর, কুমিল­া বলেন, আমড়াতলী গ্রামের আকাশ নামের একটি ছেলেকে ছত্রখিল ফাঁড়ির গৌতম নামের এক পুলিশ সদস্য ধরে নিয়ে বেদমভাবে প্রহার করেছে। অথচ ছেলেটা ছিল সম্পূর্ণ নির্ধোষ। ছেলেটাকে মাদক ব্যবসায়ে জড়িত সন্দেহে এধরনের নির্যাতন করা হয়েছে। তিনি বলেন, কোন ধরনের প্রমান ছাড়া যদি  আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী নিরাপরাধ লোকদের উপর অত্যাচার চালায় তাহলে মানুষ কার কাছে আশ্রয় পাবে। এবিষয়ে জনপ্রতিনিধিদের এলাকার জনগনের কাছে জবাব দেয়ার উপায় থাকে না। এব্যাপারে আইনগত সঠিক পদক্ষেপ নেয়ার জন্য তিনি অনুরোধ জানান। তিনি আরো বলেন, আমড়াতলী ইউনিয়নে অর্ধেকটাই মাদকে সয়লাব হয়ে গেছে। একমাত্র মাঝিগাছায় ১২টার মত মাদক স্পট রয়েছে। জনপ্রতিনিধি হিসাবে আমরা তৎপর হওয়ায় তা কিছুটা কমেছে। মাদক সেবনকারীরা ২/৩ বার জেল খাটলে ভাল না হলেও তাদের দাপট অনেক কমে যাবে বলে তিনি সভাকে অবহিত করেন।

০৩। জনাব মোঃ আবুল কালাম আজাদ, চেয়রম্যান, ০২নং দুর্গাপুর(উঃ) ইউনিয়ন পরিষদ,আদর্শ সদর,কুমিল­­­া বলেন, মাদক ব্যবসায় পুরুষের সাথে অনেক মহিলারাও জড়িত আছে। যারা মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত তাদের মনে ভয়ভীতি বলতে কিছুই নেই । দেখা যায়, মাদকের অপরাধের জন্য তারা সাজা খেটে মুক্তি পেলে আবার সেধরনের অপরাধে পুূনরায় জড়িত হচ্ছে। ভাল হওয়ার মত মনমানসিকতা তাদের ভিতরে কাজ করছে না।  এধরনের অপরাধীদের সংশোধনের কার্যকরি কোন পথ আছে কিনা তা আমাদের ভেবে দেখা দরকার। ০৪। জনাব মোঃ আলাউদ্দিন, সহকারী শিক্ষক, আওয়ার লেডী অব ফাতিমা গার্লস হাই স্কুল, কুমিল­া বলেন, ভাবনা পুকুরের পাড়ে বসবাসরত জনৈক জামালের বউ গাজা বিক্রির সাথে জড়িত। সেখানে অনেক নেশাকর ছেলেরা আসে এবং একটু পরে চলে যায়। এবিষয়ে পুলিশ প্রশাসন একটু তৎপর হলে তা বন্ধ করা সম্ভব। তিনি বলেন, আওয়ার লেডী অব ফাতিমা গার্লস হাই স্কুল ছুটির পর গীর্জার কাছে বকাটে ছেলেরা মেয়েদেরকে উত্যক্ত করে থাকেন। স্কুল ছুটির পর রাসত্মায় অনেক জ্যাম্প লাগে, সেজন্য উক্ত সময় একজন ট্রাফিক পুলিশ নিয়োগ দেয়ার জন্য তিনি অনুরোধ জানান। 

বিসত্মারিত আলোচনামেত্ম নিম্নলিখিত সিদ্ধামত্মসমুহ গৃহিত হয়ঃ-

ক্র:নং

সিদ্ধামত্মসমুহ

বাসত্মবায়ন কর্তৃপক্ষ

০১.

মাদক পাচার ও মাদক সেবন প্রতিরোধে নিয়মিত ঝটিকা অভিযান পরিচালনা আরো জোরদার করে অপরাধীদের ধরে থানায় সোপর্ধ করে শাসিত্মর ব্যবস্থা করতে হবে।

অফিসার ইন-চার্জ, কোতয়ালী মডেল থানা, কুমিল­া এবং কোম্পানী কমান্ডার, বিজিবি, বিবির বাজার ক্যাম্প, বৌয়ারা বাজার ক্যাম্প ও বড়জ্বালা ক্যাম্প, আদর্শ সদর, কুমিল­া।

০২.

মাদক পাচার ও মাদক সেবন প্রতিরোধে নিয়মিত মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার, আদর্শ সদর, কুমিল­া, সহকারী কমিশনার(ভূমি), আদর্শ সদর, কুমিল­া  ও অফিসার ইন-চার্জ, কোতয়ালী মডেল থানা, কুমিল­া।

০৩.

মাদক পাচার,মাদক সেবন ও চোরাচালান প্রতিরোধে যাতে নিরাপরাধ ব্যক্তি অযথা হয়রানির সম্মুখীন না হয়, সেবিষয়ে অভিযান পরিচালনাকারী বাহিনীকে অভিযান পরিচালনার সময় সর্তক দৃষ্টি রাখতে হবে।

অফিসার ইন-চার্জ, কোতয়ালী মডেল থানা, কুমিল­া এবং কোম্পানী কমান্ডার, বিজিবি, বিবির বাজার ক্যাম্প, বৌয়ারা বাজার ক্যাম্প ও বড়জ্বালা ক্যাম্প, আদর্শ সদর, কুমিল­া।

           

            সভাপতি বলেন, মাদক প্রতিরোধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে অপরাধীদের ধরে জেল ও জরিমান উভয় দন্ড প্রদান করে শাসিত্মর ব্যবস্থা করা হচ্ছে এবং যা অব্যাহত থাকবে। ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালতের কার্যক্রম আরো জোরদার করে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর সাধারণ অপরাধ/অভিযোগসমূুহের বিচার কাজ দ্রুত নিস্পত্তি করার জন্য ইউপি চেয়ারম্যানদের অনুরোধ জানান। মাদক প্রতিরোধে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি মাদক ব্যবসায়ীদেরকে সামাজিকভাবে বয়কট করতে পারলে তাতে অনেকটা কার্যকর ফল লাভ করা যাবে । অত্র উপজেলার আইন-শৃংখলা উন্নতির জন্য তিনি সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করে এবং  অদ্যকার সভায় আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে যেসব সিদ্ধামত্ম গৃহিত হয়েছে, তা যথাযথভাবে বাসত্মবায়নের জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানান।

             অতঃপর সভায় আর কোন আলোচ্য বিষয় না থাকায় উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন। 

                                                                                                          

           

 

 

 

 

( মোঃ হেলাল উদ্দিন )

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

আদর্শ সদর, কুমিল্লা

               

স্মারক নং-০৫.৪২.১৯৬৭.০০০.০৬.০০২.১৪-                                                         তারিখঃ        /     /২০১৪খ্রিঃ

    অনুলিপি সদয় অবগতি ও প্রয়োজনীয় কার্যার্থে প্রেরণ করা হলোঃ-

০১। মাননীয় সংসদ সদস্য, কুমিল­­­া-৬।

০২। জেলা প্রশাসক, কুমিল্লা

০৩। পুলিশ সুপার, কুমিল্লা

০৪। চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ,আদর্শ সদর, কুমিল্লা

০৫। সহকারী কমিশনার(ভূমি), আদর্শ সদর,কুমিল্লা  

০৬। উপজেলা.............................................. আদর্শ সদর,কুমিল্লা

০৭। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, কোতয়ালী মডেল থানা,কুমিল্লা

০৮। চেয়ারম্যান,........................................ইউনিয়ন পরিষদ, আদর্শ সদর,কুমিল্লা

 

 

   

( মোঃ হেলাল উদ্দিন )

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

আদর্শ সদর, কুমিল্লা